ঢাকাসোমবার , ১৩ জুন ২০২২
  • অন্যান্য
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মৌসুমীর বক্তব্যের পাল্টা যা বললেন ওমর সানী

নিউজ রুম
জুন ১৩, ২০২২ ৩:৩৯ অপরাহ্ণ । ১৬৭ জন
Link Copied!
সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্বামী ওমর সানী নয়, বরং জায়েদ খানের পক্ষে কথা বলেছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। গণমাধ্যমে পাঠানো এক অডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, জায়েদ খান তাকে কোনো ভাবে অসম্মান করেননি। তাদের মধ্যে ভাই-বোনের সম্পর্ক। জায়েদ খান তাকে বড় বোনের মতো সম্মান করেন, তিনিও জায়েদকে ছোট ভাইয়ের মতো স্নেহ করেন। ওমর সানী মিথ্যাচার করছেন বলেও জানান মৌসুমী।

স্ত্রীর এমন বক্তব্যের পর গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছেন ওমর সানীও। চলুন তবে দেখে আসি মৌসুমী ও নিজের পরিবার সম্পর্কে কী বলেছেন ‘চাঁদের আলো’ সিনেমার এই নায়ক।

ওমর সানী বলেছেন, ‘আমি অত্যন্ত শ্রদ্ধা করি আমার পরিবারকে। ২৭ বছর ধরে শ্রদ্ধা করে এসেছি এবং বাংলাদেশের মানুষও জানে। আমার ব্যাডলাক যে ২৭ বছর পরে এসে আমার শ্রদ্ধার জায়গাটায় কী গুনাহ করলাম আমার পরিবারের সবাই, তা আমরা জানি না।’

‘যাই হোক, আল্লাহ মহান, আমি যে কথাগুলো জায়েদ খান সম্পর্কে বলেছি, আমি বারবার একটা কথায় বলেছি আমার এবং আমার ছেলে ফারদিনের কাছে যথেষ্ট পরিমাণ অ্যাভিডেন্স আছে। আমার পরিবারের পাঁচজন সদস্য, আমি, মৌসুমী, আমার ছেলে ফারদিন, বউমা আয়েশা, মেয়ে ফাইজা। তারা স্ট্যান্ডবাই আমাদের জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে আছে। আমার আত্মীয়-স্বজন আছে। সবাই আছে। এই ব্যাপারে আমার যা বলার বলে ফেলেছি।’

মৌসুমীর বক্তব্যের বিপরীতে তাকে অসম্মান করা হয় এমন কোনো বক্তব্য দেবেন না জানিয়ে ওমর সানী বলেন, ‘আমি অত্যন্ত শ্রদ্ধা জানাই আমার ওয়াইফকে, সম্মান জানাই আমার ছেলে মেয়েকেও। আমি মৌসুমীর ব্যাপারে বাজে কোনো মন্তব্য করব না। আমি মনে করি না।’

মৌসুমীর বক্তব্যের জবাব দেওয়া প্রসঙ্গে সানী বলেন, ‘এগুলোর উত্তর আমার এবং ছেলে ফারদীনের কাছে আছে। মেয়ে ফাইজার কাছেও আছে। ফাইজা এবং ফারদিন বাকি উত্তরগুলো দেবে। তারাই সিদ্ধান্ত নেবে তার মার সঙ্গে কী উত্তর দেবে, আর সাংবাদিকদের কী উত্তর দেবে। আমি এ বিষয়ে নীরবতা পালন করলাম।’

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে ছিল খল অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধণা। সেখানে শোবিজের অনেকেই আমন্ত্রিত ছিলেন। ওই অনুষ্ঠানে গিয়ে জায়েদ খানকে চড় মারেন ওমর সানী। অভিযোগ, জায়েদ খান নাকি মৌসুমীকে চার মাস ধরে নানা ভাবে হেনস্তা ও অসম্মান করছে।

চড় খাওয়ার পর জায়েদ খান নাকি পিস্তল বের করে ওমর সানীকে গুলি করার হুমকি দেন। এমন অভিযোগ এনে রবিবার সন্ধ্যায় চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন ওমর সানী। যদিও সেদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ডিপজল, রোজিনা ও অঞ্জনা রহমানের দাবি, পিস্তল বের করে হুমকি দেওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এছাড়া জায়েদ খানও তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ শুরু থেকে অস্বীকার করে আসছেন। তার দাবি, তিনি মৌসুমীকে বড় বোনের মতো সম্মান করেন। জায়েদ সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারা মৌসুমী আপার সঙ্গে কথা বললেই বুঝতে পারবেন। তাকে অসম্মান করার প্রশ্নই আসে না। ওই দিনের অনুষ্ঠানে ওমর সানী মদ্যপ ছিলেন বলেও উল্লেখ করেন জায়েদ খান।

%d bloggers like this: