ঢাকাশনিবার , ৮ এপ্রিল ২০২৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কামাল চেয়ারম্যানের”গ্রাম আদালতের বিচারে” খুশি দরিদ্র সোহরাব! 

নিউজ রুম
এপ্রিল ৮, ২০২৩ ১০:০০ অপরাহ্ণ । ৪৭ জন
Link Copied!
সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আল আমিন,ভোলা বঙ্গ নিউজ ।।

বাংলাদেশে বিচার ব্যবস্থার সর্বনিম্ন স্তর হচ্ছে গ্রাম আদালত। গ্রামাঞ্চলের কিছু কিছু মামলার নিষ্পত্তি এবং তৎসর্ম্পকীয় বিষয়াবলীর বিচার সহজলভ্য করার উদ্দেশো গ্রাম আদালত গঠন করা হয়।সহজ কথায় গ্রাম আদালত আইন ২০০৬ অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদে ২৫০০০টাকা মূল্যমানের দেওয়ানী ও ফৌজদারী মামলা নিষ্পত্তির জন্য ইউনিয়ন পরিষদে যে আদালত বসে সে আদালতেই হলো গ্রাম আদালত।তারই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার (৮ ই এপ্রিল -২৩) সকাল দশটায় একটা গ্রাম আদালত বসেছে ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নে।

ঐ আদালতে দীর্ঘদিন পর্যন্ত আসামি অনুপস্থিত থাকায় একটি মামলা পেন্ডিং ছিল। অসম্পন্ন বিচারকার্য ফল প্রত্যাশী ভুক্তভোগী ছিল অত্র ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ সোহরাব। তার ভাষ্যমতে গত ২০২১ সালে তার কাছ থেকে প্রবাসে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেওয়ার কথা বলে ৫ লক্ষ টাকা নেয় ইউনিয়নের বাসিন্দা তার প্রতিবেশী আমির হোসেন। ভুক্তভোগী সোহরাব জানান, আমাকে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে দীর্ঘদিন হয়রানি করিয়েছে সে। আমার সাথে প্রতারণা করেছে এবং আমার টাকাগুলোও ফেরত দেয়নি সে।

তাই আমি ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতে একটা মামলা করি অতঃপর চেয়ারম্যান আমার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখেছেন। সোহরাব বলেন”কামাল চেয়ারম্যানের জন্যই আমি আমার কষ্টের টিয়া গুলি পাইছি’ চেয়ারম্যানের বিচারে আমি খুশি হইছি”

বিচারকার্যটি সম্পাদনা করেন অত্র ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন। তিনি জানান সোহরাব একজন পরহেজগার লোক,অতন্ত্য সৎ এবং অসহায়। আমি বিস্তারিত সব জানি তাই এই মামলাটি সুস্থ তদন্তের মাধ্যমে তার ন্যায্য পাওনা তাকে ফেরত দেওয়া হয় এবং তার কাছ থেকে কোনো ধরনের ফি বাবদ বা দালালদের চক্করে পড়তে হয়নি কারণ তার বিষয়টি আমি বিশেষভাবে তদন্ত করেছি।আজ শনিবার(৮ই এপ্রিল -২৩) সকাল ১১:৪৫ মিনিটে মামলাটি নিষ্পত্তি করা হয়।

আসামি মোঃ আমির হোসেনর সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন এ ঘটনার জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। এরকম ঘটনা আর কখনো হবেনা।

%d bloggers like this: